উচ্চ শিক্ষা,চাকরি কিছুই মিলল না! তখন কি করবে? অনুষ্ঠান মঞ্চেই ইঞ্চিনিয়ারিং পড়ুয়াদের মনসিকতার জরিপ কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর।

কোন কারণে তোমরা উচ্চ শিক্ষার সুযোগ বা চাকরি পেলেই না!সেক্ষেত্রে কিভাবে অর্জিত শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে সমাজে নিজেকে নিয়োজিত করবে? অনুষ্ঠান মঞ্চে এই প্রশ্ন করে পড়ুয়াদের মানসিকতার জরিপ করেন কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী।উত্তর দেয় পড়ুয়ারও। কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকারের এই ভুমিকা অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবার প্রশংসাও।কুড়োয়।

উচ্চ শিক্ষা,চাকরি কিছুই মিলল না! তখন কি করবে? অনুষ্ঠান মঞ্চেই ইঞ্চিনিয়ারিং পড়ুয়াদের মনসিকতার জরিপ কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : বাঁকুড়া উন্নয়নী ইন্সটিটিউট অফ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ২৪ তম প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠান মঞ্চে একেবারে ভিন্ন ভুমিকায় দেখা গেল বাঁকুড়ার সাংসদ তথা দেশের শিক্ষা দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী ডাঃ সুভাষ সরকারকে। এদিন অনুষ্ঠানের সুচনার পর মঞ্চে নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে নিজের হাতের মাইক্রোফোন তুলে দিলেন কলেজের ইঞ্জিনিয়াররিং পড়ুয়াদের হাতে।


অ্যাপটি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

তাদের ডেকে বলেন।কেন তোমরা ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছ বল। এরপরই তিনি বলেন কোন কারণে তোমরা উচ্চ শিক্ষার সুযোগ বা চাকরি পেলেই না! সেক্ষেত্রে কিভাবে অর্জিত শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে সমাজে নিজেকে নিয়োজিত করবে। এই প্রশ্নের উত্তর দেয় পড়ুয়ারা। কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকারের এই ভুমিকা অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবার প্রশংসাও কুড়োয়।

এর পর মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন এই কলেজের উন্নতির তিনি সব ধরনের সাহায়তা করবেন। এমনকি কলেজের তৈরি মোটর চালিত বৈদ্যুতিক ঢেকির বানিজ্যিক উৎপাদন এবং এর আরও কারিগরি বৈচিত্র্য আনার ক্ষেত্রেও তিনি এদিন সহায়তার আশ্বাস দেন। অন্যদিকে,কলেজের চেয়ারম্যান শশাঙ্ক দত্ত বলেন, ইঞ্জিনিয়ারিং এর পাশাপাশি তিন বছরের বিসিএ,বিবিএ কোর্স চালু হয়েছে। এর পর নার্সিং ও প্যারামেডিকেল শাখাও এই কলেজে চালু করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে৷ পাশাপাশি,তিনি আরও জানান, কলেজের তৈরি মোটর চালিত বৈদ্যুতিক ঢেকির বানিজ্যিক উৎপাদনও শুরুর চিন্তা ভাবনা করা হচ্ছে। কারণ ইতিমধ্যেই দেশ ও বিদেশের বিভিন্ন জন এই ঢেকি কেনার উৎসাহ প্রকাশ করেছেন৷।তাই সেই চাহিদা মেটানোর জন্যই এই উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

👁️দেখুন 🎦ভিডিও। 👇



Next Story