আকাশ পথে বাঁকুড়ার বন্যা পরিস্থিতি পরিদর্শন মুখ্যমন্ত্রীর,বড়জোড়ায় বন্যা কবলিত এলাকায় কল্যাণ ও সায়ন্তিকা।

আকাশ পথে বাঁকুড়ার বন্যা পরিস্থিতি পরিদর্শন মুখ্যমন্ত্রীর,বড়জোড়ায় বন্যা কবলিত এলাকায় কল্যাণ ও সায়ন্তিকা।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : জেলার দামোদর তীরবর্তী বড়জোড়া ও সোনামুখী ব্লকের বিভিন্ন এলাকা জলের তলায়।এই এলাকাগুলিতে বন্যার জেরে এখনও জনজীবন বিপর্যস্ত। আকাশ পথে রাজ্যের আট জেলার বন্যা পরিস্থিতি এদিন পরিদর্শন করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বাঁকুড়ার এই বন্য কবলিত এলাকা আকাশ পথে হেলিকপ্টারে চড়ে পরিদর্শন করেন বলে জেলা প্রশাসন সুত্রে জানানো হয়েছে।


পাশাপাশি, এদিন মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে বাঁকুড়ার বড়জোড়ার বিভিন্ন বন্যা কবলিত এলাকা সরেজমিনে ঘুরে দেখার পাশাপাশি বন্যা দুর্গতদের ত্রাণ বিলি করেন সাংসদ কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায় ও সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন বড়জোড়ার মালিয়াড়া অঞ্চলের মেটালি,নপাড়া,মাধবপুর,উপরশোল,কুলডিহা সহ বেশ কয়েকটি গ্রামে যান তারা।

সাথে ছিলেন বড়জোড়ার বিধায়ক অলোক মুখোপাধ্যায়ও। কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও সায়ন্তিকা এদিন বন্যা দুর্গতদের হাতে ত্রিপল, শুকনো খাবার বিলি করেন৷ অন্যদিকে,মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আকাশ পথে রাজ্যের ৮ জেলার বন্যা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে,সরাসরি ডিভিসির বিরুদ্ধে তোপ দাগেন এবং এই বন্যা দুর্গতদের ক্ষতিপূরণ ডিভিসিকেই মেটাতে হবে বলে দাবীও তোলেন তিনিবাঁকুড়া এই বন্য পরিস্থিতি নিয়ে রাজনৈতিক তর্জাও শুরু হয়ে গিয়েছে। বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ বড়জোড়া ও সোনামুখীর এই বন্যা পরিস্থিতির জন্য তৃণমূল সরকারকের বিরুদ্ধে পালটা আক্রমণ শানিয়েছেন এদিন।জেলার এই দুই ব্লক ছাড়া অন্যান্য জায়গায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে।


জেলার সিংহভাগ এলাকায় জল নেমে গিয়ে জনজীবন স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছে বলে জেলা প্রশাসন সুত্রে দাবী করা হয়েছে। তবে জেলায় এখনও কিছি,কিছু এলাকায় মানুষ ত্রাণ শিবিরে রয়েছেন। সারা জেলাজুড়ে প্রচুর ফসলের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তার হিসেব কষার কাজ করছে কৃষি দপ্তর।

👁️দেখুন 🎦ভিডিও। 👇


Next Story