শ্যামের তছরুপ কান্ডের আঁচ থেকে বাঁচতেই কি তন্ময়ের তৃণমূলে যোগ? বিরোধীদের এই অভিযোগের পালটা কি উত্তর দিলেন তিনি?জেনে নিন।

শ্যামের তছরুপ কান্ডের আঁচ থেকে বাঁচতেই কি  তন্ময়ের তৃণমূলে যোগ? বিরোধীদের এই অভিযোগের পালটা কি উত্তর দিলেন তিনি?জেনে নিন।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর বিষ্ণুপুরে পা রেখেই জন জোয়ারে ভাসলেন বিধায়ক তন্ময় ঘোষ। তাকে স্বাগত জানাতে কর্মী,সমর্থকদের সাথে নিয়ে হাজির ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি অলোক মুখোপাধ্যায়।তন্ময়কে ঘিরে তৃণমূল কর্মী, সমর্থকদের মধ্যে এদিন ছিল বাঁধভাঙ্গা উচ্ছ্বাস।


গতকালই বিষ্ণুপুরে এসে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদানকারী তন্ময়কে তার দলগত অবস্থান স্পষ্ট করার জন্য চিঠি দেওয়ার কথা সাংবাদিকদের কাছে ঘোষণা করেন বিজেপির বিধানসভার পরিষদীয় দল নেতা শুভেন্দু অধিকারী। পাশাপাশি,বিধায়ক পদে ইস্তাফা না দিয়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় তন্ময়কে কটাক্ষও করেন শুভেন্দু বাবু। এমনকি তিনি তন্ময়ের এই দলত্যাগ শ্যাম মুখোপাধ্যায়ের তছরুপ কান্ডের আঁচ থেকে নিজেকে বাঁচানোর কৌশল বলেও অভিযোগ তোলেন।

আজ এই প্রসঙ্গে কার্যত সরাসরি উত্তর দেওয়া এড়িয়ে গেলেন তন্ময় বাবু। তিনি সাংবাদিকদের বলেন,শুভেন্দু অধিকারীর প্রশ্নের উত্তর তিনি নন, দলের নেতারা দেবেন। এছাড়া শ্যাম মুখোপাধ্যায়ের ১০ কোটি তছরুপ কান্ডের আঁচ থেকে বাঁচতেই কি তার এই দলত্যাগ? সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে তিনি বলেন, শ্যাম মুখোপাধ্যায়ের তছরুপ মামলা আইনের পথেই চলবে। এটুকু ছাড়া আর বক্তব্য না বাড়িয়ে কার্যত নিজেকে বিতর্ক থেকে দূরে সরিয়ে রাখার চেষ্টা চালালেন তিনি। যদিও,বিজেপির পক্ষ থেকে এই দলত্যাগের পিছনে শ্যামবাবুর তছরুপ কান্ডে তন্ময়ের জড়িয়ে পড়ার ইস্যুকে খাড়া করেই প্রচার শুরু করে দিয়েছে বিজেপি।অন্যদিকে,বিষ্ণপুরে পা রেখেই মল্লভূমের উন্নয়নে সবাইকে সাথে নিয়ে কর্মযোজ্ঞে সামিল হওয়ার অঙ্গীকার করেন তন্ময় ঘোষ।

এখন দেখার, বিষ্ণুপুরবাসী তার সাথে সাথ দেন কিনা? তার ওপরই নির্ভর করছে তন্ময় বাবুর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ।

👁️দেখুন 🎦ভিডিও। 👇



Next Story