বড়জোড়ায় বিজেপি বুথ সভাপতির ওপর হামলা, মেরে ভেঙ্গে ফেলা হল হাত ও পা,অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে।

বড়জোড়ায় বিজেপি বুথ সভাপতির ওপর হামলা, মেরে ভেঙ্গে ফেলা হল হাত ও পা,অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : বিজেপি বুথ সভাপতির ওপর হামলা! ব্যাপক মারধর করে ভেঙ্গে ফেলা হল হাত ও পা। অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে। এই ঘটনার জেরে বড়জোড়ার পখন্না গ্রামে রাজনৈতিক উত্তেজনা চরমে উঠেছে। আহত বুথ সভাপতি সহদেব ধাড়াকে প্রথমে বড়জোড়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও পরে তাকে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়।


বিজেপি দাবী,সোমবার নিজের জমিতে যখন কীটনাশক স্প্রে করছিলেন সহদেব বাবু। তখন জনা চল্লিশেক তৃণমূল কর্মী,সমর্থক তার ওপর চড়াও হয়। এবং মারধর করে। এমনকি তার হাত ও পা ভেঙ্গে দেয় তারা। পখন্না গ্রামের ৭৩ নাবার বুথের সভাপতি সহদেব ধাড়ার ওপর এই হামলা আসলে ভোট পরবর্তী হিংসার সামিল বলেও দাবী করছে বিজেপি।

যদিও স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, গতরাতে গ্রামে বিসর্জনের শোভাযাত্রায় স্থানীয় এক তৃণমূল কর্মীর সাথে বচসা হয়। তার জেরেই এদিন সকালে ফের ঝামেলার সুত্রপাত। এবং তা চরম আকার নেয়।ব্যাপক মারধর করে সহদেবের হাত এবং পা ভেঙ্গে দেওয়ার অভিযোগ উঠছে। এবং এই ঘটনায় তৃণমূলের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছে বিজেপি। এই ঘটনার জেরে বিজেপি ও তৃণমূলের বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার সভাপতি সুজিত আগস্তি ও অলোক মুখোপাধ্যায়ের মধ্যে রাজনৈতিক চাপান উতোর শুরু হয়েছে পুরোদমে। বিজেপি এই ঘটনায় রাজনৈতিক রং চাপিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে কুৎসা রটানোর কৌশল নিয়েছে বলে পাল্টা অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূলের বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার সভাপতি অলোক মুখোপাধ্যায়।

বিধানসভা ভোটের রেশ আর নেই ঠিকই। তবুও বড়জোড়ায় এখনও রাজনৈতিক হামলার বিরাম নেই। তাই এদিনের এই হামলাকে ভোট পরবর্তী হিংসার তকমা দিয়ে হাইকোর্টে দ্বারস্থ হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে বিজেপি নেতৃত্ব এমনটাই সুত্রের খবর।

👁️দেখুন 🎦ভিডিও। 👇


অ্যপ ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

Next Story